চিরতরে মেছতা দূর করার উপায় - মেছতা দূর করার ঔষধ

বর্তমান সময়ে এসে আমরা অনেকেই মেছতার সমস্যায় ভুগি। আমরা অনেকেই মেছতা দূর করার উপায় খুঁজে বেড়াই। কিন্তু আমরা সঠিক মেছতা দূর করার সঠিক উপায় খুঁজে পাই না। আপনি যদি এই সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়েন তাহলে আশা করি চিরতরে মেছতা দূর করার উপায় - মেছতা দূর করার ঔষধ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন।
চিরতরে মেছতা দূর করার উপায়
তাই আপনি যদি চিরতরে মেছতা দূর করার উপায় সম্পর্কে জানতে চান তাহলে সম্পূর্ণ পোস্টটি মনোযোগ দিয়ে পড়ুন। এই সম্পূর্ণ পোস্টটি মনোযোগ দিয়ে পড়লে আশা করি আপনি মেছতা দূর করার নানাউপায় সম্পর্কে বেশ কিছু ধারনা পেয়ে যাবেন।

ভূমিকা

বর্তমান সময়ে এসে যুবক বয়স থেকে শুরু করে বৃদ্ধ বয়স পর্যন্ত আমরা সবাই মেছতা সমস্যায় ভুগে থাকি। এক কথায় মেছতার সমস্যায় ভুগছেন নারী এবং পুরুষ। এই সম্পূর্ণ পোস্টটি জুড়ে মেছতা দূর করার সঠিক নিয়ম নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে। তাই আপনি যদি আপনার চিরতরে মেছতা দূর করার উপায় সম্পর্কে জানতে চান এবং মেছতা দূর করতে চান তাহলে অবশ্যই সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়বেন। তাহলে আশা করি আপনার সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে।

মেছতা দূর করার ঘরোয়া পদ্ধতি

আলুঃ মুখের মেছতা দূর করতে আলু খুবই কার্যকরী একটি উপাদান। সবথেকে সহজলভ্য ও হাতের কাছে থাকা উপাদান হচ্ছে আলু। আলু দিয়ে রয়েছে একপ্রকার এন্টিঅক্সিডেন্ট যা আমাদের ত্বকের কালো দাগ দূর করে এবং আমাদের ত্বককে উজ্জ্বল করে তোলে।তাই আপনি ত্বকের মেছতা দূর করতে আলু কেটে তার রস বের করে মুখে লাগান। তারপর ১০ থেকে ১৫ মিনিট পর পানি দিয়ে ভালো করে আপনার মুখমণ্ডলটি ধুয়ে ফেলুন। এরকম করে সপ্তাহে অন্তত তিন থেকে চারবার ব্যবহার করলে আপনার মুখের মেছতা দূর হয়ে যাবে।

লেবুঃ মুখের মেছতা দূর করতে আলুর পাশাপাশি লেবুও খুবই কার্যকরী একটি উপাদান। সাধারণত সবার বাসা বাড়িতেই লেবু থাকে। লেবুতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে সাইট্রিক এসিড যা আমাদের ত্বকের মেছতা দূর করতে এবং ত্বকের সৌন্দর্য বাড়াতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। মেছতার দাগ দূর করার পাশাপাশি লেবু ত্বকের ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়াকে মেরে ফেলে।

তার কারণে ত্বক হয়ে ওঠে ফর্সা ও সুন্দর। লেবু ব্যবহার করার জন্য আপনি লেবুর রস অল্প কিছু পানিতে মিশিয়ে আপনার মুখমন্ডলে লাগিয়ে নিতে পারেন। তার ১৫ থেকে ২০ মিনিট পর পানি দিয়ে সুন্দর করে ধুয়ে ফেলুন। এতে করে আপনার ত্বকের মেছতা দূর হয়ে যাবে।

টক দই এবং মধুঃ টক দই ও মধু মেছতার দাগ দূর করতে খুবই কার্যকরী একটি উপাদান। তার জন্য আপনি টক দই এর সাথে কিছু পরিমাণে মধু মিশিয়ে তা আপনার মেছতার দাগের উপরে লাগান। তারপর ১৫ থেকে ২০ মিনিট পর পানি দিয়ে সুন্দর করে ধুয়ে ফেলুন। এটি নিয়মিত ব্যবহারে আপনার ত্বক কে করে তুলবে কোমল এবং উজ্জ্বল ও তার সাথে সাথে মেছতার দাগ দূর করে দিবে।

এলোভেরাঃ মেছতা দূর করতে কার্যকরী উপাদান হচ্ছে অ্যালোভেরা। আপনি সকালে এবং রাতে আপনার মেছতার জায়গায় এলোভেরা লাগিয়ে নিতে পারেন। যখন দেখছেন এটি শুকিয়ে গেছে তখন পানি দিয়ে ভালো করে ধুয়ে ফেলুন। এটি অল্প কয়েকদিনের ব্যবহারে ধীরে ধীরে আপনার দাগ দূর হয়ে যাবে।

আর্মান্ড ওয়েলঃ ত্বকের মেছতা দূর করতে আর্মান্ড ওয়েল অথবা বাদামে তেল খুবই কার্যকরী একটি উপাদান। মেছতার দাগ দূর করার জন্য এই বাদামের তেলটি হালকা গরম করে আপনার মেছতার দাগের উপরে লাগান। এতে রয়েছে ফ্যাটি অ্যাসিড এবং ভিটামিন ই যা আপনার ত্বকের মেছতার দাগ দূর করবে।

চিরতরে মেছতা দূর করার উপায় 

আলুঃ মুখের মেছতা দূর করতে আলু খুবই কার্যকরী একটি উপাদান। সবথেকে সহজলভ্য ও হাতের কাছে থাকা উপাদান হচ্ছে আলু। আলু দিয়ে রয়েছে একপ্রকার এন্টিঅক্সিডেন্ট যা আমাদের ত্বকের কালো দাগ দূর করে এবং আমাদের ত্বককে উজ্জ্বল করে তোলে।তাই আপনি ত্বকের মেছতা দূর করতে আলু কেটে তার রস বের করে মুখে লাগান। তারপর ১০ থেকে ১৫ মিনিট পর পানি দিয়ে ভালো করে আপনার মুখমণ্ডলটি ধুয়ে ফেলুন। এরকম করে সপ্তাহে অন্তত তিন থেকে চারবার ব্যবহার করলে আপনার মুখের মেছতা দূর হয়ে যাবে।

লেবুঃ মুখের মেছতা দূর করতে আলুর পাশাপাশি লেবুও খুবই কার্যকরী একটি উপাদান। সাধারণত সবার বাসা বাড়িতেই লেবু থাকে। লেবুতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে সাইট্রিক এসিড যা আমাদের ত্বকের মেছতা দূর করতে এবং ত্বকের সৌন্দর্য বাড়াতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। মেছতার দাগ দূর করার পাশাপাশি লেবু ত্বকের ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়াকে মেরে ফেলে।

তার কারণে ত্বক হয়ে ওঠে ফর্সা ও সুন্দর। লেবু ব্যবহার করার জন্য আপনি লেবুর রস অল্প কিছু পানিতে মিশিয়ে আপনার মুখমন্ডলে লাগিয়ে নিতে পারেন। তার ১৫ থেকে ২০ মিনিট পর পানি দিয়ে সুন্দর করে ধুয়ে ফেলুন। এতে করে আপনার ত্বকের মেছতা দূর হয়ে যাবে। এইভাবে লেবু ব্যবহারে চিরতরে মেছতার দাগ দূর হয়ে যাবে

টক দই এবং মধুঃ টক দই ও মধু মেছতার দাগ দূর করতে খুবই কার্যকরী একটি উপাদান। তার জন্য আপনি টক দই এর সাথে কিছু পরিমাণে মধু মিশিয়ে তা আপনার মেছতার দাগের উপরে লাগান। তারপর ১৫ থেকে ২০ মিনিট পর পানি দিয়ে সুন্দর করে ধুয়ে ফেলুন। এটি নিয়মিত ব্যবহারে আপনার ত্বক কে করে তুলবে কোমল এবং উজ্জ্বল ও তার সাথে সাথে মেছতার দাগ দূর করে দিবে।

এলোভেরাঃ মেছতা দূর করতে কার্যকরী উপাদান হচ্ছে অ্যালোভেরা। আপনি সকালে এবং রাতে আপনার মেছতার জায়গায় এলোভেরা লাগিয়ে নিতে পারেন। যখন দেখছেন এটি শুকিয়ে গেছে তখন পানি দিয়ে ভালো করে ধুয়ে ফেলুন। এটি অল্প কয়েকদিনের ব্যবহারে ধীরে ধীরে আপনার দাগ দূর হয়ে যাবে।

মেয়েদের মেছতা দূর করার সঠিক উপায়

মেছতা দূর করার বিভিন্ন উপায় রয়েছে। মেস্তা দূর করার জন্য সবার প্রথমে একটি ছোট বাটিতে কয়েক টুকরো আলো নিন। এই আলুটি এখন পিসে রস বের করুন এবং আলুর রসটি আপনার মুখে মেছতার উপরে লাগান। এটি ভালোভাবে লাগিয়ে 15 থেকে 20 মিনিট রাখুন। ১৫ থেকে ২০ মিনিট পর পানি দিয়ে ভালোভাবে ধুয়ে ফেলুন। এটি সপ্তাহে অন্তত তিন থেকে চার দিন ব্যবহার করুন তাহলে আশা করি আপনার মুখের মেছতার দাগ দূর হয়ে যাবে।

আরেকটি সহজ উপায় হচ্ছে লেবুর রস। আমাদের সবারই বাসায় লেবু সবসময় পাওয়া যায়। লেবু যেমন খেলে উপকার হয় ঠিক তেমনি ত্বকের জন্য লেবু খুবই উপকারী। আপনি প্রথমে একটি লেবু কেটে নিন তারপরে লেবু থেকে রস বের করে একটি পাত্রতে নিন। তারপরে সেই লেবুর রসগুলো আপনার মেছতার দাগের উপরে লাগিয়ে সুন্দরভাবে মেসেজ করো। লাগানোর ১৫ থেকে ২০ মিনিট পর এটি ঠান্ডা পানি দিয়ে ভালো করে ধুয়ে ফেলুন। এটি নিয়মিত ব্যবহার করলে আশা করি আপনার মুখের মেছতার দাগ দূর হয়ে যাবে।

মুখের মেছতার দাগ দূর করতে টক দই ও মধু খুবই কার্যকরী। এক্ষেত্রে মেয়েরা প্রথমে একটি পাত্রের কিছু পরিমাণ টক দই নিন এবং টক দের সাথে পরিমাণ মতো মধু নিয়ে একটি ফেসপ্যাক তৈরি করুন। এই ফেসপ্যাকটি আপনার মুখমণ্ডলে ভালো করে লাগান। লাগানোর বিষ থেকে তিরিশ মিনিট পর যখন এই ফেসপ্যাকটি শুকিয়ে যাবে তখন হালকা কুসুম গরম পানি দিয়ে আপনার মুখমণ্ডলটি ভালো ধুয়ে ফেলুন। এটি অন্তত সপ্তাহে তিন থেকে চার দিন চার দিন ব্যবহার করলে আপনার মুখের মেছতার দাগ কমতে শুরু করবে।

মুখের মেছতার দাগ দূর করার সহজ উপায় হচ্ছে অ্যালোবেরা। মেছতার দাগ দূর করার জন্য আপনি অ্যালোভেরা দাগ এর উপরে লাগাতে পারেন। এটি সাধারণত সকালে এবং রাতে যেকোনো সময় ব্যবহার করতে পারবেন। ব্যবহার করার পর যখন দেখছেন অ্যালোভেরা গুলি শুকিয়ে গেছে তখন আপনার মুখমন্ডল টি ভালো করে দিয়ে ফেলুন। আশা করি মেছতার দাগ দূর হয়ে যাবে।

ছেলেদের মেছতা দূর করার উপায়

বর্তমান সময়ে এসে মেয়েদের চেয়ে বেশি ছেলেদের মেছতার সমস্যায় ভুগতে দেখা যায়। তার কারণ হচ্ছে তারা সবসময় রোদে ঘুরে বেড়ায় এবং কোন ধরনের সানস্ক্রিন ব্যবহার করে না। তার জন্য ছেলেদের বেশি পরিমাণে মেছতার সমস্যা দেখা যায়। ছেলেরা তাদের মুখের মেছতা দূর করার জন্য কাঁচা হলুদ ব্যবহার করতে পারেন। আপনি কি করবেন কাঁচা হলুদ নিয়ে সেটি থেকে রস বের করে সেটি আপনার মুখমন্ডলে লাগান।

লাগানোর ১৫ থেকে ২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। এটি নিয়মিত ব্যবহারে আপনার ত্বকে থাকা মেস্তার দাগ দূর হয়ে যাবে এবং আপনার টক হয়ে যাবে সুন্দর ও কোমল। এছাড়াও মেছতার দাগ দূর করতে আপনি অ্যালোভেরা ব্যবহার করতে পারেন। তার জন্য আপনি কি করবেন একটি অ্যালোভেরা নিয়ে তার ভেতরের অংশ বের করে আপনি আপনার মুখে মেছতার দাগগুলোতে আস্তে আস্তে ম্যাসাজ করতে থাকবেন।

এটি নিয়মিত করলে আশা করি আপনার মুখে থাকা মেছতার দাগ এবং মুখের বিভিন্ন কালো দাগ দূর হয়ে যাবে। সব থেকে বড় কাজটি হচ্ছে খাদ্যা অভ্যাস পাল্টানো। বিভিন্ন ধরনের পুষ্টির অভাবেও মুখে মেছতা অথবা স্কিন ড্যামেজ হয়ে যেতে পারে। যার জন্য আপনি ভিটামিন, মিনারেল এবং পুষ্টিকর খাবার খাওয়ার চেষ্টা করবেন।

এলোভেরা দিয়ে মেছতা দূর করার সঠিক উপায়

মেছতার দাগ দূর করার ক্ষেত্রে এলোভেরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। আর এই অ্যালোভেরা ব্যবহার করা সঠিক নিয়ম আমি জানানোর চেষ্টা করতেছি। সবার প্রথমে আপনি কি করবেন একটি এলোভেরার মাঝখানের অংশ বের করে নিবেন। তারপরে সেই অংশটিকে আপনার মুখে যেখানে যেখানে মেছতার দাগ রয়েছে সেই জায়গাগুলোতে ভালোভাবে লাগাতে থাকবে। যখন আপনার অ্যালোভেরা লাগানো সম্পন্ন হয়ে যাবে তারপরে 20 থেকে 30 মিনিট রেখে দিন।

তারপরে আপনি যখন দেখছেন যে অ্যালোভেরা টি শুকিয়ে গেছে। তখন আপনি পরিষ্কার পানি দিয়ে সুন্দর করে আপনার মুখমণ্ডলটি দিয়ে ফেলুন। এটি আপনি দিনের যেকোনো সময় ব্যবহার করতে পারেন সকালে অথবা রাতেও ব্যবহার করতে পারেন। এটি নিয়মিত ব্যবহারে আপনার ত্বকের মেছতার দাগ একদম দূর হয়ে যাবে। তাই মেছতার দাগ দূর করতে অবশ্যই এলোভেরা ব্যবহার করুন।

মেছতা দূর করার ক্রিমের নাম - মেছতা দূর করার ঔষধ

আমার মতে মেছতা দূর করার জন্য প্রাকৃতিক উপাদান গুলোই ব্যবহার করা উচিত। যেমন, হলুদ, আলু, লেবু, এলোভেরা ইত্যাদি। তারপরেও যদি কেউ মেস্তা দূর করার জন্য কোন ক্রিম ব্যবহার করতে চাই তাহলে MELANYC Cream টি আপনি ব্যবহার করতে পারেন। আমার জানামতে এই ক্রিমের কোন পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নাই। এই ক্রিমটি একমাস ব্যবহারে আপনার মুখের মেছতা দূর হয়ে যাবে। তাই মুখে মেস্তা দূর করতে অবশ্যই এই ক্রিমটি ব্যবহার করুন। তবে মেছতা  দূর করার ঔষধও রয়েছে।

শেষ কথাঃ চিরতরে মেছতা দূর করার উপায় 

এ সম্পন্ন পোস্টটি জুড়ে মেছতা দূর করার বিভিন্ন উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করার চেষ্টা করেছি। তাই যদি আপনার পোস্টটি ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করুন এবং নিত্যপ্রয়োজনীয় বিভিন্ন তথ্য পেতে ওয়েবসাইটটি নিয়মিত ভিজিট করুন ধন্যবাদ।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

আজকের ইনফো নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url