আয়তক্ষেত্রের ক্ষেএফল ও আয়তক্ষেত্রের পরিসীমা নির্ণয়ের সূত্র জেনে নিন

আপনারা কি আয়তক্ষেত্রের ক্ষেএফল ,পরিসীমা ও কর্ণের দৈর্ঘ্য নির্ণয়ের সূত্র সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন। তাহলে সঠিক জায়গায় এসেছেন। আজকে আমরা আয়তক্ষেত্রের ক্ষেত্রফল ও পরিসীমা নির্ণয় সূত্র নিয়ে আলোচনা করব। জানতে হলে অবশ্যই শেষ পর্যন্ত আমাদের সঙ্গে থাকুন।
আয়তক্ষেত্রের ক্ষেএফল ও আয়তক্ষেত্রের পরিসীমা নির্ণয়ের সূত্র
আয়তক্ষেত্রের ক্ষেত্রফল ও পরিসীমা নির্ণয়ের কিছু সূত্র রয়েছে চলুন জেনে নেওয়া যাক।

আয়তক্ষেত্রের সংজ্ঞাঃ আয়তক্ষেত্র কাকে বলে?

যে চতুর্ভুজের বিপরীত বাহুগুলো সমান ও বিপরীত বাহুগুলো সমান্তরাল এবং প্রত্যেকটি কোণ সমকোণ (90°) তাকে আয়তক্ষেত্র বলে। আরেকভাবে বলা যায় যে চতুর্ভুজের প্রত্যেকটি কোণ সমকোণ এবং বিপরীত বাহুগুলো সমান ও সমান্তরাল তাকে আয়তক্ষেত্র বলে।
আয়তক্ষেত্র

আয়তক্ষেত্রের ক্ষেএফল নির্ণয়ের সূত্র

আয়তক্ষেত্রের দৈর্ঘ্য a একক এবং প্রস্থ b একক হলে

আয়তক্ষেত্রের ক্ষেএফল = (দৈর্ঘ্য × প্রস্থ) বর্গ একক
                                         = ab বর্গ একক

∴ আয়তক্ষেত্রের ক্ষেত্রফল= ab বর্গ একক

এবার অংক দিয়ে আয়তক্ষেত্রের ক্ষেত্রফল নির্ণয় করা যাকঃ

আয়তক্ষেত্রের দৈর্ঘ্য a=১০ একক এবং প্রস্থ b=২০ একক হলে

আয়তক্ষেত্রের ক্ষেএফল = (১০ × ২০) বর্গ একক
                                         =২০০ বর্গ একক 

(একক = মিটার, সেন্টিমিটার, মিলিমিটার সহ যেকোনো দৈর্ঘ্য একক হতে পারে)

তাহলে যদি আয়তক্ষেত্রের ক্ষেত্রফল মিটার এককে করা হয় তাহলে ওপরের মান অনুযায়ী নির্ণয়ে ক্ষেত্রফল = (১০ × ২০) বর্গ মিটার
                 =২০০ বর্গ মিটার

আয়তক্ষেত্রের পরিসীমা কাকে বলে

আয়তক্ষেত্রের বাহুগুলোর সমষ্টিকে অর্থাৎ বাহুগুলোর যোগফলকে আয়তক্ষেত্রের পরিসীমা বলে। আয়তক্ষেত্রের চারটি বাহু যোগ করলে অর্থাৎ চারটি বাহুর যোগফলকে আয়তক্ষেত্রের পরিসীমা বলা হয়।

আয়তক্ষেত্রের পরিসীমা নির্ণয়ের সূত্র

আয়তক্ষেত্রের দৈর্ঘ্য x একক এবং প্রস্থ y একক হলে(দৈর্ঘ্য=x , প্রস্থ=y, ধরা হয়েছে)

আয়তক্ষেত্রের পরিসীমা = ২ (দৈর্ঘ্য + প্রস্থ) 

                                = 2 (x+y) একক

এবার  আয়তক্ষেত্রের দৈর্ঘ্য ৩ সেন্টিমিটার ও প্রস্থ ২ সেন্টিমিটার হলে 

আয়তক্ষেত্রের পরিসীমা= ২ (দৈর্ঘ্য + প্রস্থ) 
                                        =২ (৩+২) সেন্টিমিটার
                                        =১০ সেন্টিমিটার

 আয়তক্ষেত্রের কর্ণের সংজ্ঞা                                       

আয়তক্ষেত্রের বিপরীত শীর্ষবিন্দু গুলো যোগ করলে যে রেখাংশ পাওয়া যায় তাকে আয়তক্ষেত্রের কর্ণ বলে। আয়তক্ষেত্রের দুটি কর্ণ রয়েছে এবং কর্ণ দুটি পরস্পর সমান ও একে অপরকে সমদ্বিখণ্ডিত করে।

আয়তক্ষেত্রের কর্ণের দৈর্ঘ্য নির্ণয়ের সূত্র

আয়তক্ষেত্রের দৈর্ঘ্য a একক এবং প্রস্থ b একক হলে

  আয়তক্ষেত্রের কর্ণের দৈর্ঘ্য 

=(দৈর্ঘ্য)2 + (প্রস্থ)2 একক 
 = √(a^2 + b^2) একক

 শেষ কথা

আশা করছি আর্টিকেলটি পড়ে আপনারা আয়তক্ষেত্রের ক্ষেএফল পরিসীমা ও কর্ণের দৈর্ঘ্য নির্ণয়ের সূত্র সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। এ ধরনের আরো গণিতের সূত্র পেতে আমাদের ওয়েবসাইটি নিয়মিত ভিজিট করুন।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

আজকের ইনফো নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url