বাংলাদেশের সেরা ১০টি ঔষধ কোম্পানি সম্পর্কে জেনে নিন

বাংলাদেশের সেরা ১০টি ঔষধ কোম্পানি-বর্তমান সময়ে আমাদের মধ্যে প্রায় সব মানুষই বিভিন্ন রোগের জন্য ওষুধ খেয়ে থাকেন। কিন্তু আপনারা টপ ১০ ঔষধ কোম্পানি সম্পর্কে তেমন কিছু জানেন না। এই সম্পূর্ণ পোস্টটি জুড়ে টপ ১০ ঔষধ কোম্পানি এবং স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে। যদি এই সম্পূর্ণ পোস্টে আপনি পড়েন তাহলে আশা করি বাংলাদেশের সেরা ঔষধ কোম্পানি সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য পেয়ে যাবেন।
টপ ১০ ঔষধ কোম্পানি

তাই আপনি যদি বাংলাদেশের সেরা ঔষধ কোম্পানি সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য পেতে সম্পন্ন পোস্ট মনোযোগ দিয়ে পড়ুন। আশা করি সম্পূর্ণ পোস্টটি মনোযোগ দিয়ে পড়লে আপনি বাংলাদেশের সেরা ঔষধ কোম্পানি সম্পর্কে সমস্ত তথ্য পেয়ে যাবেন।

ভূমিকা

বর্তমান প্রেক্ষাপটে দাঁড়িয়ে আমরা নানান অসুখে ভুগছি এবং এই অসুখগুলো দূর করার জন্য আমরা বিভিন্ন ধরনের ঔষধ সেবন করছি। আমরা কম বেশি সবাই বিভিন্ন কোম্পানির নানান ওষুধ খেয়ে থাকি। কিন্তু আমরা বাংলাদেশের সেরা ঔষধ কোম্পানি সম্পর্কে তেমন কিছু জানি না। এই সম্পূর্ণ পোস্টটি জুড়ে আমি বাংলা বিভিন্ন তথ্য আলোচনা করব। তাই বিস্তারিত তথ্য জানতে সম্পূর্ণ পোস্টটি মনোযোগ দিয়ে পড়ার অনুরোধ রইলো।

স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস(square pharmaceutical)

সবার প্রথম এবং শিষ্যে রয়েছে স্কয়ার কোম্পানি লিমিটেড। ধারণা করা হয় স্যামসন এইচ এবং তার তিন বন্ধু একসাথে সম্মিলিত হয়ে ১৯৫৮ সালে স্কয়ার কোম্পানি প্রতিষ্ঠা করেন। দেশ-বিদেশের বিভিন্ন স্থানে এই কোম্পানির ঔষধ রপ্তানি শুরু হয় ১৯৮৭ সাল থেকে। বর্তমান সময়ে এসে দেশ-বিদেশের প্রায় সকল মানুষ স্কয়ার কোম্পানির ঔষধ ব্যবহার করে থাকে।

এমনকি বাংলাদেশ ছাড়াও প্রায় 42 টিরও বেশি দেশে স্কয়ার কোম্পানির ঔষধ ব্যবহার করা হয়। আপনি যদি এই কোম্পানি সম্পর্কে আরও তথ্য পেতে চান তাহলে তাদের ওয়েবসাইট ভিডিট করুন https://www.squarepharma.com.bd/।

রেনাটা লিমিটেড(retina pharmaceuticals)

দ্বিতীয়তে রয়েছে রেনাটা লিমিটেড অন্যতম একটি ঔষধ কোম্পানি বলে খ্যাতি অর্জন করেছে। আনুমানিক রেনাটা লিমিটেড ওষুধ কোম্পানিটি বাংলাদেশে ১৯৯৩ সালে প্রতিষ্ঠা করা হয়। এছাড়াও ঢাকার মিরপুরে রেনাটা লিমিটেডের প্রধান কার্যালয় অবস্থিত রয়েছে। সাধারণত এই কোম্পানিটির ঔষধ উদপাদন কারখানা দুইটি রয়েছে।

যথা, রাজেন্দ্রপুর এবং ঢাকা মিরপুরে। সাধারণত রেনাটা লিমিটেড ঔষধ কোম্পানির ঔষধ দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করা হয়। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া, ইউরোপ এবং আফ্রিকা ইত্যাদি দেশের সরবরাহ করা হয়। বাংলাদেশে আমরা অনেক মানুষ এই রেনেটা কোম্পানির ঔষধ ব্যবহার করে থাকি।

ইনসেপ্টা ফার্মাসিউটিক্যালস(incepta pharmaceuticals)

বাংলাদেশের ঔষধ কোম্পানি এর মধ্যে অন্যতম ঔষধ কোম্পানি হচ্ছে ইনসেপ্টা ফার্মাসিউটিক্যালস কোম্পানি। ধারণা করা হয় ইনসেপ্টা ওষুধ কোম্পানিটি ঢাকায় প্রতিষ্ঠা করা হয় ১৯৯৯ সালের শুরুতে অথবা মাঝামাঝি একসময় কালে। আমাদের মধ্যে অনেকেরই ইনসেপ্টা কোম্পানির ওষুধ পরিসিতি লাভ করেছে। আমরা অনেকেই বিভিন্ন অসুখ-বিসুখে এই কোম্পানির ওষুধ ক্রয় করে থাকি।

শুরুতে এই ওষুধ কোম্পানিটি বাংলাদেশে তাদের কোম্পানির তৈরি কৃত ঔষধ বিক্রি করতো কিন্তু বর্তমানে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এই কোম্পানির ওষুধ সারবরাহ করা হয়। বাংলাদেশের মধ্যে উন্নত ওষুধ কোম্পানি হিসেবে এটি সবার মাঝে পরিচিত লাভ করেছে। বর্তমানে বাংলাদেশের এক তৃতীয়াংশ মানুষ এই কোম্পানির ঔষধ ব্যবহার করে উপকৃত হয়।

অ্যারিস্টো ফার্মা লিমিটেড(aristo pharmaceuticals)

বাংলাদেশের কোম্পানি এর মধ্যে অ্যারিস্টো ফার্মা ওষুধ কোম্পানিটি অন্যতম। বিভিন্ন তথ্য থেকে জানা যায় লিঃ কোম্পানিটি ১৯৮৬ সালে শ্যামপুরে প্রতিষ্ঠিত করা হয়। বর্তমানেও শ্যামপুরে এই কোম্পানিটি অবস্থিত রয়েছে। এছাড়াও এটি বাংলাদেশের মধ্যে অন্যতম আধুনিক ঔষধ তৈরি কারখানা হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করেছে।

শুধুমাত্র বাংলাদেশেই নয় বাংলাদেশের বিভিন্ন দেশে এই কোম্পানির ওষুধ সরবরাহ করা হয়ে থাকে এবং এই ওষুধগুলো ব্যবহার করে মানুষ উপকৃত হচ্ছেন। বর্তমানে বাংলাদেশের প্রচুর মানুষ অ্যারিস্ট কোম্পানির ওষুধ ক্রয় করেন এবং উপকৃত হন।আপনি যদি এই কোম্পানি সম্পর্কে আরও তথ্য পেতে চান তাহলে তাদের ওয়েবসাইট ভিডিট করুন https://aristopharma.com।

বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস(Beximco Pharmaceuticals)

টপ ১০ ঔষধ কোম্পানি  এর মধ্যে ব্যক্তিমোকো বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস ঔষধ কোম্পানি অন্যতম। সাধারণত বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস বেক্সিমকো গ্রুপে অন্তর্ভুক্ত প্রতিষ্ঠান। ধারণা করা হয় বেক্সিমকো ওষুধ কোম্পানিটির প্রতিষ্ঠাতা কাল ১৯৮০ সাল। এর সাথে সাথে কোম্পানিটির ঢাকার ধানমন্ডিতে সদর দপ্তর রয়েছে।

কোম্পানিটির প্রধান মালিক হচ্ছেন জনাব নাজমুল হাসান পাপন। বর্তমান সময়ে এসে দেশের বিভিন্ন মানুষ তাদের বিভিন্ন সমস্যায় এই কোম্পানির ওষুধ ব্যবহার করে উপকৃত হচ্ছেন।আপনি যদি এই কোম্পানি সম্পর্কে আরও তথ্য পেতে চান তাহলে তাদের ওয়েবসাইট ভিডিট করুন https://www.beximcopharma.com/।

পপুলার ফার্মাসিউটিক্যালস(popular pharmaceutical)

ঔষধ কোম্পানি এর মধ্যে অন্যতম কোম্পানি হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করে পপুলার ফার্মাসিউটিক্যালস কোম্পানি। পপুলার ঔষধ কোম্পানিটির প্রতিষ্ঠাকাল ডিসেম্বর মাস 2002 সাল। এই কোম্পানিটি মান এবং গুণের দিক দিয়ে বাংলাদেশের মধ্যে অন্যতম একটি ঔষধ কোম্পানি হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করে। পুরো দেশে কোম্পানিটির অত্যাধুনিক ঔষধ উৎপাদন কারখানা রয়েছে আটটি।

সকল মান এবং গুণের দিক দিয়ে বিবেচনা করলে বাংলাদেশের মধ্যে অন্যতম ঔষধ কোম্পানি হিসেবে স্বীকৃতি লাভ পেয়েছে এই কোম্পানি। আপনি যদি এই কোম্পানি সম্পর্কে আরো তথ্য জানতে চান তাহলে তাদের ওয়েবসাইট থেকে ঘুরে আসতে পারেন। আপনি যদি এই কোম্পানি সম্পর্কে আরও তথ্য পেতে চান তাহলে তাদের ওয়েবসাইট ভিডিট করুন  https://www.popular-pharma.com/।

হেলথকেয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস(healthcare pharmaceuticals)

ঔষধ কোম্পানি এর মধ্যে অন্যতম একটি ওষুধ কোম্পানি হল হেলথ কেয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস কোম্পানি। কোম্পানির সংক্ষিপ্ত নাম বলা হয় HPL। বর্তমান সময়ে এসে কোম্পানিটি ২০০ টিরও বেশি পণ্য উৎপাদন করতে সক্ষম হয়েছে। যার কারণে বর্তমানে কোম্পানিটি বাংলাদেশের সেরা ওষুধ কোম্পানি হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করেছে।

তাদের উৎপাদনকৃত ওষুধের মধ্যে রয়েছে, মলম, চোখের ড্রপ, জেল, ক্যাপসুল এবং ট্যাবলেট ইত্যাদি বিভিন্ন ধরনের পণ্য। আপনি যদি এই কোম্পানি সম্পর্কে আরও তথ্য পেতে চান তাহলে তাদের ওয়েবসাইটটি ভিজিট করুন https://www.hplbd.com/।

জিসকা ফার্মাসিউটিক্যালস(Ziska Pharmaceuticals Limited)

বাংলাদেশের সেরা ঔষধ কোম্পানি এরমধ্যে অন্যতম কোম্পানি হচ্ছে জিসকা ফার্মাসিউটিক্যালস কোম্পানি লিমিটেড। ধারণা করা হয় জিসকা কোম্পানিটির প্রতিষ্ঠাতা কাল ১৯৮৯ সাল। সাধারণত এই ঔষধ কোম্পানিটি বর্তমান সময়ে ১৫০ টির বেশি পণ্য তৈরি করা শুরু করেছে। যার মধ্যে অন্যতম, ওরাল লিকুইডস, সলিডস, ট্রপিকাল পিপারেশন এবং ছোট এবং বড় আয়তনের বিভিন্ন ধরনের প্যারেন্টেরাল।

বর্তমান সময়ে এসে কোম্পানিটি বাংলাদেশের সেরা ওষুধ কোম্পানি হিসেবে স্বীকৃতি লাভ পেয়েছে। আপনি যদি এই কোম্পানির সম্পর্কে আরো তথ্য পেতে চান তাহলে তাদের ওয়েবসাইটটি ভিজিট করুন https://www.ziskapharma.com.bd/products।

এসকেএফ ফার্মাসিউটিক্যালস(Eskayef Pharmaceuticals Ltd)

বাংলাদেশের সেরা ঔষধ কোম্পানি এর মধ্যে এস কে এফ ফার্মাসিউটিক্যালস কোম্পানি অন্যতম। বর্তমানে বাংলাদেশের অন্যতম ঔষধ কোম্পানি হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করেছে কোম্পানি টি। ধারণা করা হয় কোম্পানিটি সর্বপ্রথম বাংলাদেশে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল ১৯৯০ সালে। কোম্পানিটিকে ট্রান্সকম গ্রুপের একটি অংশ বলা হয়ে থাকে। বর্তমানে কোম্পানিটির ঢাকার বনানীতে প্রধান সদর দপ্তর অবস্থিত রয়েছে।

এই কোম্পানিটি বিভিন্ন বাল্ক পেলেট, প্রাণী স্বাস্থ্য, থেরাপিউটিক ওষুধ এবং বিভিন্ন পুষ্টিজাত পণ্য গুলি উৎপাদন করার পাশাপাশি এগুলো বাজার করে থাকে। বর্তমানে বাংলাদেশের বিভিন্ন মানুষ কোম্পানিটির বিভিন্ন ঔষধ ব্যবহার করে উপকৃত হচ্ছে। যদি আপনি এই কোম্পানি সম্পর্কে আরও তথ্য পেতে চান তাহলে তাদের ওয়েবসাইটটি ভিজিট করুন https://www.skfbd.com/ ।

একমি ল্যাবরেটরিজ লিমিটেড(acme pharmaceuticals)

বাংলাদেশের সেরা ওষুধ কোম্পানির মধ্যে অন্যতম একমি ল্যাবরেটরিজ লিমিটেড কোম্পানি। সাধারণত একমি ল্যাবরেটরিজ লিমিটেড কোম্পানিটি একমি গ্রুপ অফ ইন্ডাস্ট্রির অন্তর্ভুক্ত একটি কোম্পানি হিসেবে বিবেচিত। ধারণা করা হয় কোম্পানিটি বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা কাল ১৯৫৪ সাল। বর্তমানে কোম্পানিটির ঢাকার কল্যানপুরে সদর দপ্তর অবস্থিত রয়েছে।

বর্তমান সময়ে এসে বাংলাদেশের বাংলাদেশের বিভিন্ন মানুষ এই কোম্পানির ওষুধ ব্যবহার করে উপকৃত হচ্ছে। আপনি যদি এই কোম্পানির সম্পর্কে আরো তথ্য পেতে চান তাহলে তাদের ওয়েবসাইটটি ভিজিট করুন https://www.acmeglobal.com/contact-us/corporate-office/।

শেষ কথা

এই ওষুধের কোম্পানি ছাড়াও বাংলাদেশ আরও উন্নত উন্নত বিভিন্ন ওষুধ কোম্পানি রয়েছে। আপনারা যদি কোন রোগের ওষুধ ব্যবহার করতে চান তাহলে অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শে ব্যবহার করুন। ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া কোন ধরনের ঔষধ বা ক্রিম ব্যবহার করবেন না। তাহলে এটি আপনার জন্য ভালো তো হবেই না বরং গুরুতর ক্ষতি করবে। তাই অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শে ঔষধ ব্যবহার করুন।

এই সম্পূর্ণ পোস্টটি জুড়ে আমি বাংলাদেশের সেরা ওষুধ কোম্পানি সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করার চেষ্টা করেছি। যদি এই সম্পূর্ণ পোস্টটি মনোযোগ দিয়ে পড়ার পর আপনার ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করুন এবং নিত্য প্রয়োজনের বিভিন্ন তথ্য পেতে ওয়েবসাইটটি নিয়মিত ভিজিট করুন ধন্যবাদ।
Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url